Sunday, September 19, 2021

বিশ্বজুড়ে কোভিড-১৯ দুঃস্বপ্ন শেষ হতে আরো অপেক্ষা করতে হবে

বিশ্বের দেশগুলো করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে সংকটময় অবস্থায় রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু করে অন্য উন্নত রাষ্ট্রগুলোতে মানুষের মাথায় এখন একটিই প্রশ্ন রয়েছে। সেটি হল, কবে নাগাদ আবার তারা কাজে ফিরতে পারবে। তবে বিশ্বের বাকি অংশের জন্য এই দুঃস্বপ্নের মাত্র শুরু হয়েছে। অনেক দরিদ্র রাষ্ট্রই এই মহামারি থামাতে কার্যকর কিছু করতে ব্যর্থ হবে। আন্তর্জাতিক নেতৃত্বের অভাব থাকায় উন্নত রাষ্ট্রগুলো থেকেও প্রয়োজনীয় সাহায্য পাওয়া সম্ভব নয়।
ইরান বাদে এখন পর্যন্ত যেসব দেশেই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা গেছে তাদের সবগুলোর চিকিৎসা ব্যবস্থাই সন্তোষজনক ছিল। ইরানের চিকিৎসা ব্যবস্থা ইউরোপ বা যুক্তরাষ্ট্রের মতো না হলেও এটি বেশ কার্যকর।
কিন্তু সিরিয়া ও বাংলাদেশে থাকা উদ্বাস্তু শিবিরগুলোতে এই ব্যবস্থা কতখানি আছে? কিংবা মুম্বাই বা রিও ডি জেনিরোর মতো শহরগুলোতে যেখানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা অসম্ভব এবং সরকারকে মানুষ বিশ্বাস করে না, সেখানে কি পরিণতি হবে? এটি শুধু তাদের জন্যই নয়, পুরো পৃথিবীর জন্য নতুন বিপর্জয় নিয়ে আসবে। কারণ কাঁচামালের সবথেকে বড় যোগান এসব রাষ্ট্রই।
আন্তর্জাতিক ক্রাইসিস গ্রুপের এক জরিপে বলা হয়েছে, মহামারির পূর্ন প্রভাব সামলানো কঠিন। তবে ঘন বসতিপূর্ন শহরগুলোতে এটি নিয়ন্ত্রণ করা অসম্ভব। মহামারিতে দরিদ্র রাষ্ট্রগুলোর সবথেকে বড় সমস্যা হবে তাদের চিকিৎসা সরঞ্জামের ক্ষেত্রে। যেমন, যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১ লাখ ৬০ হাজার ভেন্টিলেটর আছে। অপরদিকে, সিয়েরা লিওনে আছে ১৩ টি, দক্ষিণ সুদানে আছে মাত্র ৪টি। ভেনিজুয়েলাতে ইতিমধ্যে ৯০ ভাগ হাসপাতালে চিকিৎসা সরঞ্জামের অভাব দেখা দিয়েছে। দেশটিতে প্রায় ৩ কোটি ২০ লাখ মানুষের জন্য আইসিইউ রয়েছে মাত্র ৮৪টি।
যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে সরকার ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কর্মীদের বেতন দিতে পেরেছে। অন্তত বড় একটি অংশ দেয়া হয়েছে। বাকিরা সরকারের কাছ থেকে বেকার ভাতা পেয়েছেন। কিন্তু আফ্রিকা, লাতিন আমেরিকা ও দক্ষিণ এশিয়ার শত কোটি মানুষের কোনো অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নেই। আইএমএফ ও বিশ্ব ব্যাংক এ সংকট কাটাতে দরিদ্র ও উন্নয়নশীল দেশগুলোকে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার ঋণ প্রস্তাব দিয়েছে। তবে তারা একইসঙ্গে এটিও বলছে যে, এই অর্থও যথেষ্ট নয়। দরিদ্র হলেও স্থিতিশীলতা থাকার কারণে পেরুর মতো অনেক রাষ্ট্র দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পারবে। আবার হাইতি ও ভেনিজুয়েলার মতো রাষ্ট্র বড় ধরণের সংকটে পড়তে যাচ্ছে। এরমধ্যে মিশরের মতো রাষ্ট্রগুলো যেখানে স্বৈরশাসন রয়েছে সেখানে সরকার মহামারিকে কাজে লাগিয়ে মানুষের গলা চেপে ধরছে। আবার হয়ত নাইজার, অ্যাঙ্গোলা, চাঁদ, মালি, উগান্ডা ও সোমালিয়াতে তরুণ জনগোষ্ঠি বেশি হওয়ায় মহামারি নিয়ন্ত্রণ কিছুটা সহজ হবে। এসব দেশের বেশিরভাগ মানুষের বয়সই ১৫ এর কম। যুক্তরাষ্ট্রে এ হার মাত্র ১৯ শতাংশ।
বিশ্বজুড়ে দেখা যাচ্ছে কিছু ইতিবাচক পদক্ষেপও। কোভিড-১৯ এর কারণে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের সঙ্গে দুই সপ্তাহের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করেছে সৌদি জোট। কলোম্বিয়া, ক্যামেরুন ও ফিলিপাইনে সশস্ত্র দলগুলোও অস্ত্রবিরতির কথা জানিয়েছে। আফগান সরকার ও তালেবান জঙ্গিরা উভয়ই করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় কাজ করছে। রাশিয়াও সিরিয়া ও ইউক্রেনে তার সমর্থিত সশস্ত্র সংগঠন বা সরকারকে সাহায্য করা থেকে দূরে আছে। তবে সবাই একইরকম নয়। ইসলামিক স্টেট আবারো তার অনুসারিদের জিহাদি হামলা চালানোর নির্দেশ দিয়েছে। হুতিরা এখনো সৌদি আরবের যুদ্ধবিরতি মঞ্জুর করেনি। আফ্রিকাতেও কিছু অঞ্চলে যুদ্ধ চলছেই।
ধনী রাষ্ট্রগুলো কোভিড-১৯ সংকট শুরু হতেই নিজ দেশের সীমান্তের মধ্যে চিন্তা গুটিয়ে ফেলেছে। তবে এত দ্রুত এ মহামারি বিশ্ব অর্থনীতিকে কাবু করে দিয়েছে যে, কোনো রাষ্ট্রই আর এ থেকে প্রভাবমুক্ত থাকতে পারে না। কিন্তু সেই অর্থে কোনো রাষ্ট্র সংকট মোকাবেলায় নেতৃত্বে নিয়ে আসেনি নিজেকে। এই সংকটে যুক্তরাষ্ট্র নিজেকে আবারো বৈশ্বিক নেতা হিসেবে তুলে ধরতে পারত। দেশটি এখনো সেটি করতে পারে। কিন্তু নিজ দেশেই ব্যর্থ ট্রাম্প প্রশাসন বিশ্বের জন্য সামান্যই অনুপ্রেরণা সৃষ্টি করতে পারবে।

Related Articles

ধারাবাহিক : পলাশ রাঙা দিন

নুসরাত রীপা পর্ব-১৬ তুলির বিয়েতে মীরা আসবে না শুনে বিজুর খুব মন খারাপ । মীরাকে মায়ের কলিজা বলে মা কে ক্ষ্যাপালেও মীরাকে ও আপন বোনের মতোই...

প্রকৃতিকন্যা সিলেট- নয়নাভিরাম রাতারগুল

মিলু কাশেম অপরূপ প্রকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি আমাদের বাংলাদেশ।নদ নদী পাহাড় পর্বত হাওর বাওর সমুদ্র সৈকত প্রবাল দ্বিপ ম্যানগ্রোভ বন জলজ বন চা বাগানসহ পর্যটনের নানা...

হাওড়ে প্রেসিডেন্ট রিসোর্টের জমকালো উদ্বোধন

দুই নায়িকা নিয়ে জায়েদ খান মিশা ডিপজল রুবেল হেলিকপ্টারে চড়ে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন করতে এসেছিলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান, জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

ধারাবাহিক : পলাশ রাঙা দিন

নুসরাত রীপা পর্ব-১৬ তুলির বিয়েতে মীরা আসবে না শুনে বিজুর খুব মন খারাপ । মীরাকে মায়ের কলিজা বলে মা কে ক্ষ্যাপালেও মীরাকে ও আপন বোনের মতোই...

প্রকৃতিকন্যা সিলেট- নয়নাভিরাম রাতারগুল

মিলু কাশেম অপরূপ প্রকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি আমাদের বাংলাদেশ।নদ নদী পাহাড় পর্বত হাওর বাওর সমুদ্র সৈকত প্রবাল দ্বিপ ম্যানগ্রোভ বন জলজ বন চা বাগানসহ পর্যটনের নানা...

হাওড়ে প্রেসিডেন্ট রিসোর্টের জমকালো উদ্বোধন

দুই নায়িকা নিয়ে জায়েদ খান মিশা ডিপজল রুবেল হেলিকপ্টারে চড়ে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন করতে এসেছিলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান, জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা...

মৎস্য খাতে অর্জিত সাফল্য ও টেকসই উন্নয়ন

ড. ইয়াহিয়া মাহমুদমৎস্যখাতের অবদান আজ সর্বজনস্বীকৃত। মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপিতে মৎস্য খাতের অবদান ৩.৫০ শতাংশ এবং কৃষিজ জিডিপিতে ২৫.৭২ শতাংশ। আমাদের দৈনন্দিন খাদ্যে...

জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে বহুগুণ

মৎস্য উৎপাদনে যুগান্তকারী সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ। পরিকল্পনা মাফিক যুগোপযোগী প্রকল্প গ্রহণ করায় এই সাফল্য এসেছে। মাছ উৎপাদন বৃদ্ধির হারে সর্বকালের রেকর্ড ভেঙেছে বাংলাদেশ।...