Thursday, September 23, 2021

গ্রাহকের একাউন্ট থেকে টাকা চুরি করছে সোনালী ব্যাংকের জালিয়াত


বিভিন্ন গ্রাহকের একাউন্ট থেকে গোপনে নিজের একাউন্টে টাকা স্থানান্তর করে আত্মসাত করছে সোনালী ব্যাংকের একটি জালিয়াত সি-িকেট। হেড অফিসের বড় কর্তাদেরকে বিষয়টি জানানোর পর তারাও ভাগ-বাটোয়ারায় লিপ্ত হয়ে গেছেন বলে জানা গেছে। বিষয়টি জানাজানি হবার পর ‘ভুল পোষ্টিং’ উল্লেখ করে গ্রাহকের একাউন্টে কিছু টাকা জমা দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেবার পাঁয়তারা চলছে বলে জানা গেছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রাষ্ট্রায়ত্ব সোনালী ব্যাংকে একটি জালিয়াত সি-িকেটের সন্ধান পাওয়া গেছে। সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, প্রধান কার্যালয়, মতিঝিল, ঢাকা-এর জনসংযোগ বিভাগের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার, মোঃ গোলাম হাসানের নেতৃত্বে পরিচালিত এই জালিযাত সি-িকেটের সাথে যুক্ত রয়েছে এ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার পারভেজ হাসান তরফদার, প্রিন্সিপাল অফিসার মাসুম আহমেদ, কেরানীগঞ্জস্থ রসুল পুর শাখার ম্যানেজার শুকুর আলী, সাবেক ম্যানেজার (বর্তমানে কলাতিয়া বাজার শাখায় কর্মরত) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া ও অফিসার জাবেদ রহমান চৌধুরী এবং এদের সাথে যুক্ত রয়েছে কর্মচারী ইউনিয়নের কয়েকজন নেতা। প্রধান কার্যালয়ের কর্মকর্তাদের পরামর্শে জাবেদ রহমান চৌধুরী ব্যাংকের বিভিন্ন গ্রাহকের (যাদের একাউন্টে যথেষ্ট টাকা আছে কিন্তু একাউন্টটি ডরমেন্ট হয়ে আছে অথবা দীর্ঘদিন যাবত একাউন্টে কোন লেনদেন হচ্ছেনা) একাউন্ট থেকে নিজের একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করে এবং জালিয়াত চক্রের সদস্যরা ভাগ-বন্টন করে নেয় (জাবেদ রহমানের একাউন্টে টাকা ট্রান্সফার সংক্রান্ত কিছু স্টেটমেন্ট রাজপথ বিচিত্রা’র হাতে রয়েছে।)
রাজপথ বিচিত্রার অনুসন্ধানে দেখা যায় সোনালী ব্যাংক রসুলপুর শাখার অফিসার জাবেদ রহমান চৌধুরী ২০১৭ ইং সনের ১০ আগস্ট তারিখে একটি সেভিংস ব্যাংক একাউন্ট (স্টাফ) ওপেন করেন যার নং-৫৯১০৫০১০২৫০৩৬। পরে তিনি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন গ্রাহকের একাউন্ট থেকে বিপূল পরিমান টাকা নিজের একাউন্টে ট্রান্সফার করে নিয়ে আত্মসাৎ করেন। একাউন্টগুলোর মধ্যে ৫৯১০৮৮৬৬১৬৩, ৫৯১০৮৮৬৬১৬৪, ৫৯১০৮৮৬৬১৬৫ ও ৫৯১০৮৮৬৬১৬৬ উল্লেখযোগ্য। জাবেদ রহমানের একাউন্টের হিসাব বিবরণী পর্যালোচনা করে দেখা যায় টাকা ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে একাধিক কর্মকর্তার পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়েছে। এরমধ্যে একজন আকতারুল কবির নামের একজন কর্মকর্তা অবসরেও চলে গেছেন। এই জালিয়াতি ও আত্মসাতের সাথে সাবেক ম্যানেজার মো. সেলিম মিয়া সরাসরি যুক্ত ছিলেন বলে জানা গেছে। তাছাড়া যাদের পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা হয়েছে তারাও এই চুরির ভাগ পেয়েছেন বলে জানিয়েছে একটি সুত্র। জনৈক গ্রাহক নিজের একাউন্ট থেকে টাকা তুলতে এলে জালিয়াতি ও চুরির বিষয়টি ধরা পড়ে যায়। তখন গ্রাহকের একাউন্টে টাকা জমা দিয়ে ও গ্রাহকের কাছে ক্ষমা চেয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়া হয়। ম্যানেজার সেলিম বিপদ আঁচ করতে পেরে হেড অফিসে তদবীর করে কলাতিয়া শাখায় বদলী হয়ে গেছেন। এ বিষয়ে সাবেক ম্যানেজার সেলিম মিয়ার বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘ঘটনা সত্য তবে গ্রাহকের টাকা ফেরত দিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেবার কথা ছিল।’ বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাননি কেন- এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেন, পরে একাধিকবার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি। পরে তথ্য অধিকার আইনে তার বক্তব্য চেয়ে আবেদন করেও কোন জবাব পাওয়া যায়নি। সরেজমিনে অনুসন্ধানকালে আরো জানা যায় যে, বর্তমান ম্যানেজার শুক্কুর আলী বিষয়টি জানতে পেরে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানোর উদ্যোগ নেন কিন্তু পরে চুরির ভাগ পেয়ে বিষয়টি চেপে যান। এ বিষয়ে শুক্কুর আলীর বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি বলেন ‘এসব বিষয়ে ফোনে আলোচনা ঠিক হবে না, আসুন, সম্পর্ক করি, চায়ের দাওয়াত রইল।’
এসব অভিযোগের বিষয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের বক্তব্য জানার রাজপথ বিচিত্রা’র এ প্রতিবেদক সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, প্রধান কার্যালয়, মতিঝিল, ঢাকা-এর জনসংযোগ বিভাগের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার, মোঃ গোলাম হাসানের দপ্তরে গিয়ে দুর্নীতির বিষয়টি বর্ণনা করে তার বক্তব্য দিতে অনুরোধ জানালে ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার, গোলাম হাসান, এ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল ম্যানেজার পারভেজ হাসান তরফদার ও প্রিন্সিপাল অফিসার মাসুম আহমেদ এই প্রতিবেদককে লাঞ্ছিত করেন। এই তিনজন মিলে বর্তমানে চুরির বিষয়টি ধামাচাপা দেবার দায়িত্ব নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

Related Articles

ধারাবাহিক : পলাশ রাঙা দিন

নুসরাত রীপা পর্ব-১৬ তুলির বিয়েতে মীরা আসবে না শুনে বিজুর খুব মন খারাপ । মীরাকে মায়ের কলিজা বলে মা কে ক্ষ্যাপালেও মীরাকে ও আপন বোনের মতোই...

প্রকৃতিকন্যা সিলেট- নয়নাভিরাম রাতারগুল

মিলু কাশেম অপরূপ প্রকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি আমাদের বাংলাদেশ।নদ নদী পাহাড় পর্বত হাওর বাওর সমুদ্র সৈকত প্রবাল দ্বিপ ম্যানগ্রোভ বন জলজ বন চা বাগানসহ পর্যটনের নানা...

হাওড়ে প্রেসিডেন্ট রিসোর্টের জমকালো উদ্বোধন

দুই নায়িকা নিয়ে জায়েদ খান মিশা ডিপজল রুবেল হেলিকপ্টারে চড়ে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন করতে এসেছিলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান, জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

ধারাবাহিক : পলাশ রাঙা দিন

নুসরাত রীপা পর্ব-১৬ তুলির বিয়েতে মীরা আসবে না শুনে বিজুর খুব মন খারাপ । মীরাকে মায়ের কলিজা বলে মা কে ক্ষ্যাপালেও মীরাকে ও আপন বোনের মতোই...

প্রকৃতিকন্যা সিলেট- নয়নাভিরাম রাতারগুল

মিলু কাশেম অপরূপ প্রকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি আমাদের বাংলাদেশ।নদ নদী পাহাড় পর্বত হাওর বাওর সমুদ্র সৈকত প্রবাল দ্বিপ ম্যানগ্রোভ বন জলজ বন চা বাগানসহ পর্যটনের নানা...

হাওড়ে প্রেসিডেন্ট রিসোর্টের জমকালো উদ্বোধন

দুই নায়িকা নিয়ে জায়েদ খান মিশা ডিপজল রুবেল হেলিকপ্টারে চড়ে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন করতে এসেছিলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান, জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা...

মৎস্য খাতে অর্জিত সাফল্য ও টেকসই উন্নয়ন

ড. ইয়াহিয়া মাহমুদমৎস্যখাতের অবদান আজ সর্বজনস্বীকৃত। মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপিতে মৎস্য খাতের অবদান ৩.৫০ শতাংশ এবং কৃষিজ জিডিপিতে ২৫.৭২ শতাংশ। আমাদের দৈনন্দিন খাদ্যে...

জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে বহুগুণ

মৎস্য উৎপাদনে যুগান্তকারী সাফল্য অর্জন করেছে বাংলাদেশ। পরিকল্পনা মাফিক যুগোপযোগী প্রকল্প গ্রহণ করায় এই সাফল্য এসেছে। মাছ উৎপাদন বৃদ্ধির হারে সর্বকালের রেকর্ড ভেঙেছে বাংলাদেশ।...