Thursday, May 19, 2022

গৌরীপুরে জনপ্রিয় মেয়র রফিকের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র

ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার গৌরীপুর পৌরসভার জনপ্রিয় মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম। দুই মেয়াদে এলাকার জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হয়ে তিনি ব্যাপক উন্নয়নের স্বাক্ষর রেখেছেন। পৌরসভার সার্বিক উন্নয়নে তার ভূমিকা দেশব্যাপী প্রশংসিত হয়েছে। নিজের সততা, দক্ষতা ও যোগ্যতা দিয়ে তিনি আওয়ামী লীগ তথা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করেছেন। এলাকার মানুষের সকল আপদে-বিপদে তিনি ঝাঁপিয়ে পড়েছেন এবং সাধ্যমত সাহায্য সহযোগিতা করেছেন। মানবসেবা দিয়ে তিনি যখন এলাকায় জনপ্রিয়তার শীর্ষ শিখরে আরোহন করেছেন ঠিক তখনই একটি কুচক্রী মহল তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। নিজ দলের প্রিয় মানুষ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হত্যা মামলায় তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে ফাঁসানো হয় এবং অভিযোগের বিন্দুমাত্র প্রমান ও গ্রহণযোগ্যতা না থাকা সত্তেও তাকে দল থেকে বহিস্কারের
প্রস্তাব করা হয় (অবশ্য নেতৃবৃন্দ ষড়যন্ত্রের বিষয়টি বুঝতে পেরে প্রস্তাব অনুমোদন করেনি।)
প্রসঙ্গত, গত বছরের গত ১৭ অক্টোবর রাতে আতর্কিত হামলায় খুন হন গৌরীপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র। এ ঘটনার দুইদিন পর বহু নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে ১৯ অক্টোবর রাতে থানায় ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন নিহতের ছোট ভাই। ওই মামলায় ১১নং আসামি করা হয় পৌর মেয়র সৈয়দ রফিককে।

মেয়র রফিকের আগাম জামিন এবং……..
স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকান্ডের অন্যতম আসামী গৌরীপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামকে হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ অন্তবর্তীকালীন ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন দেয় । ৫ নভেম্বর হাইকোটের বিজ্ঞ বিচারপতি শেখ মোঃ জাহির হোসেন ও বিজ্ঞ বিচারপতি কে.এম জাহিদ সরোয়ার এ জামিনাদেশ প্রদান করেন। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাকে সংশি¬ষ্ট আদালতে আত্মসমর্পনের নির্দেশ দেয়া হয়।
এদিকে শনিবার সকালে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম নিজ বাসায় আসার খবরে দলীয় নেতাকর্মী, কর্মী-সমর্থকদের ভিড় জমে উঠে। তাকে কাছে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন অনেকেই। মেয়রের পুত্র সৈয়দ রাফসানজানি অভি অভিযোগ করেন, তার পিতা সৈয়দ রফিকুল ইসলাম পৌরসভার জনপ্রিয় জনপ্রতিনিধি, বিপুল ভোটের ব্যবধানে দুইবার নির্বাচিত হয়েছেন। তাকেও হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্রসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাড়িঘরে হামলা,লুটপাট অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। সমর্থক ও ভক্তদের দাবী জনপ্রিয়তার কারণে পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম একটি চক্রের ষড়যন্ত্রের শিকার। মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম বলেন-ভালোবাসার জন্য আমার রাজনীতি, অস্ত্র লাঠির রাজনীতি আমি করি না। আইনের প্রতি আমি সব সময় শ্রদ্ধাশীল। গৌরীপুর এর জনগণ সব দেখেছেন, জানেন কে, কারা সন্ত্রাসী কার্যক্রম করে এবং করছে। আমি বিশ্বাস করি জনগনের ভালোবাসা দোয়া আমার সাথে আছে। বিচার এর দায়িত্ব আমি তাদের কাছেই দিলাম। জনগনের ভালোবাসা যতদিন আছে, ততদিন আমি রাজনীতি করব। কোন সন্ত্রাসীর কাছে কখনো মাথা নত করব না।
মামলায় প্রধান আসামী করা হয়েছে উপজেলা বিএনপির (একাংশের) যুগ্ম আহ্বায়ক ও মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ (৩৮)কে। এছাড়াও গৌরীপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম (৫০) ও তার দু’ভাই সৈয়দ তৌফিকুল ইসলাম (৪৫), সৈয়দ মাজহারুল ইসলাম জুয়েল (৪২), রিয়াদুজ্জামান রিয়াদের ভাই কার্জন, উত্তর বাজার মহল্লার সাকিব আহম্মেদ রেজা (৩৩), পশ্চিম ভালুকার রিফাত (৩২), মইলাকান্দা ইউনিয়নৈর লামাপাড়ার মোজাম্মেল (৩০), নন্দুরা গ্রামের সুমন (৩০), পশ্চিম কাউরাট গ্রামের খাইরুল (৩০) ও হানিফ (৩০), পশ্চিম কাউরাট গ্রামের চান মিয়ার পুত্র রাসেল মিয়া (৩২), ইউনুছ আলীর পুত্র জাহাঙ্গীর আলম (৩২) ও আব্দুল খালেকের পুত্র মজিবুর রহমান (৩০) কে ও অজ্ঞাতনামা ৭/৮জনকে আসামী করা হয়।
হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে তাকে দল থেকে বহিস্কার করার জন্য উপজেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে সুপারিশ করেছে। অপরদিকে হত্যাকান্ডের ঘটনায় এ পর্যন্ত ৬জনকে গ্রেফতার করেছে গৌরীপুর থানা ও ডিবি পুলিশ। ময়মনসিংহ গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ কামাল আকন্দ জানান, তাদের ৬জনই জেলহাজতে রয়েছে।
৬ সপ্তাহের আগাম জামিনের মেয়াদ শেষ হবার পর নি¤œ আদালতে হাজির হলে মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম রফিককে কারাগারে পাঠিয়ে দেয় আদালত। সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক আসামি পক্ষের জামিন আবেদন নামজ্ঞুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।
আদালত সূত্র জানায়, শুভ্র হত্যা মামলায় দুই জন আসামি ইতিমধ্যে বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এর মধ্যে একজন আসামি সৈয়দ রফিকের নাম বললেও তাঁর জড়িত থাকার কোন প্রমান পাওয়া যায়নি। অপর আসামি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে সৈয়দ রফিকের নাম বলেননি। সম্প্রতি তিনি জামিন পেয়ে কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেছেন।

সবই ষড়যন্ত্র
জানা যায়, সৈয়দ রফিকুল ইসলাম গৌরীপুর পৌরসভার টানা দুইবারের বর্তমান মেয়র। তিনি পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি। তবে শুভ্র হত্যাকান্ডের পর স্থানীয় উপজেলা আওয়ামী লীগ সৈয়দ রফিককে বহিস্কারের জন্য দলের কেন্দ্রীয় দফতরে সুপারিশ পাঠালেও এখন পর্যন্ত বহিস্কার আদেশ কার্যকর হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন জেলা আওয়ামী লীগ।
মেয়র রফিকের পরিবারের দাবি, শুভ্র হত্যা মামলায় রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রে সৈয়দ রফিককে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে তাঁর কোন সম্পৃক্ততা নেই। মূলত আসন্ন পৌর নির্বাচন থেকে সরিয়ে রাখতেই সৈয়দ রফিককে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। তাদের অভিযোগ, হত্যাকান্ডের পর নিহতের স্বজনরা জড়িত অনেকের নাম প্রকাশ করে মিডিয়ায় বক্তব্য দিয়েছে। অথচ তারা মামলায় আসামি হয়নি। কিন্তু পরিকল্পিতভাবে মামলা হওয়ার আগেই মেয়রের বাড়ীঘরে হামলা করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। দুজ্জামান রিয়াদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি গৌরীপুর উপজেলার মইলাকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তবে সকল ষড়যন্ত্রেও জাল ছিন্ন করে আবার জনগণের মাঝে ফিরে আসবে এটাই প্রত্যাশা।

Related Articles

পুনর্গঠিত হলো বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ

সভাপতি আলহাজ্জ্ব ফেরদৌস স্বাধীন ফিরোজ : সাধারণ সম্পাদক এড. মো: ফারুক উজ্জামান ভূইয়া টিপু আকাশ বাবু:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি রাজনৈতিক সহযোগী সংগঠন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক স্বাধীন...

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

পুনর্গঠিত হলো বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ

সভাপতি আলহাজ্জ্ব ফেরদৌস স্বাধীন ফিরোজ : সাধারণ সম্পাদক এড. মো: ফারুক উজ্জামান ভূইয়া টিপু আকাশ বাবু:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি রাজনৈতিক সহযোগী সংগঠন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক স্বাধীন...

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী আজ

আজ (৪ অক্টোবর) বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী। ১৯৬৪ সালে আজকের এই দিনে রাশিদা খানমের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন...

‘আইএমইডি’র নিবিড় পরিবীক্ষণ প্রতিবেদন করোনা দূর্যোগেও ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে ‘জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প’

তিন দশকে দেশে মাছের উৎপাদন বেড়েছে ২৫ গুণজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে গণভবন লেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মাছের পোনা অবমুক্ত করে মৎস্য চাষকে...