Wednesday, December 8, 2021

অবৈধ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান এখনও বহাল

দুর্নীতির তদন্ত হিমাগারে

নিজস্ব প্রতিনিধি :

পটুয়াখালী জেলায় মির্জাগঞ্জ উপজেলোয় সুবিদখালী সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ আসাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎসহ নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির গুরুতর অভিযোগের তদন্ত হিমাগারে পাঠিয়ে দিয়েছেন বলে প্রচার করে বেড়াচ্ছেন অবৈধ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান। একাধিক সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রচলিত আইন বা নিয়ম-কানুনের তোয়াক্কা না করেই নানা অনিয়ম ও দুর্নীতিতে লিপ্ত রয়েছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে কলেজের বিভিন্ন ফরম পূরণ, ভর্তি এবং অতিরিক্ত বেতন-ফি আদায়ের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, কলেজ থেকে অবৈধ পন্থায় হাতিয়ে নেওয়া অর্থ দিয়ে সুবিদখালী সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পটুয়াখালী শহরে পাঁচতলা বাড়ি নির্মাণ করেছেন। এদিকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ আসাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। দুদকের নির্দেশে স্থানীয় মীর্জাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তদন্ত করছেন বলে জানা গেছে। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ আসাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণসহ রাজপথ বিচিত্রার পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ করার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য পটুয়াখালি জেলা প্রশাসককে নির্দেশ দেন। জেলা প্রশাসক বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) জি এম সরফরাজকে দায়িত্ব দিলে তিনি ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বর তদন্তের তারিখ নির্ধারণ করে নোটিশ ইস্যু করেন কিন্তু আজ পর্যন্ত সেই তদন্ত প্রতিবেদন আলোর মুখ দেখেনি।

সরকারী নির্দেশ অমান্য করে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান
মোঃ আসাদুজ্জামান (উপাধ্যক্ষ) ক্ষমতার অপব্যবহার করে এবং সরকারী নির্দেশ অমান্য করে অত্র কলেজে নিয়ম বহির্ভূতভাবে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে আসছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, প্রভাষক (পদার্থবিদ্যা) সুবিদখালী সরকারি কলেজ, মির্জাগঞ্জ, পটুয়াখালী-এর অভিযোগ থেকে জানা যায় তিনি গত ০১/০৯/১৯৯২ইং তারিখ বিধি মোতাবেক যোগদান করেন। নিয়োগ ও যোগদান এবং এমপিও তারিখ অনুযায়ী অত্র কলেজের তিনিই জেষ্ঠ্য শিক্ষক অথচ মোঃ আসাদুজ্জামান (উপাধ্যক্ষ) ক্ষমতার অপব্যবহার করে অত্র কলেজের নিয়ম বহির্ভূতভাবে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে আসছে। তার যোগদান ও এমপিও’র তারিখ ০১/০১/২০১১ইং বিধায় তিনি জেষ্ঠ্য শিক্ষক নন। ২০১৮ ও ২০২১ জনবল কাঠামোর (১৩) ধারার বিধি মোতাবেক মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, জেষ্ঠ্য শিক্ষক বিধায় ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব পাওয়ার কথা।
এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তিনি মহাপরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, ঢাকা’র নিকট আবেদন করলেও কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না রহস্যজনক কারণে। কিন্তু দেশের অন্যান্য সব কলেজেই এই বিধান অনুযায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগ কনা হচ্ছে।

ফি-স্টাইলে অর্থ আত্মাসাত
সুবিদাখালী সরকারি কলেজের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের ৫০,০০০/- টাকা ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামান সোনালী ব্যাংকের সুবিধখালী শাখা সচিব, মাধ্যমিক উচ্চ শিক্ষা বিভাগ ডিট অফ গিফট রেজিস্ট্রি করে দিয়েও নিয়ম বর্হিভূতভাবে ভাঙিয়ে তা আত্মসাৎ করেছেন বলে জানা গেছে। কলেজের পূর্ববর্তী অধ্যক্ষ চলে যাওয়ার সময় কলেজে সাধারণ তহবিল, সংরক্ষিত তহবিল ও এফডিআরসহ মোট ২৭,০০,০০০/- (সাতাইশ লাখ) টাকার ফান্ড রেখে যান। বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ বিভিন্ন অপকৌশলে এই কলেজ ফা-ের মোটা অংকের টাকা ফা- খালি করে নিয়েছেন। ২০১৯ সালের ৪ জুলাইতে দেখা যায়, জনতা ব্যাংকে কলেজের ৯৭ নং অ্যাকাউন্টে মাত্র ১,৬৯,০০০/- (এক লক্ষ উনসত্তর হাজার) টাকা রয়েছে। অথচ এই ফা- সাড়ে চার লক্ষ টাকার নিচে নামার নিয়ম নেই। বর্তমান ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অর্থ ব্যয়ের বিষয়ে সরকারি নিষেধাজ্ঞার ধার ধারতেন না। নিয়ম ভেঙে তিনি কলেজ একাউন্ট থেকে ২,৫০,০০০/- (দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা এবং পটুয়াখালী জেলা পরিষদের ২,০০,০০০/- (দুই লক্ষ) টাকা তুলেছিলেন কলেজের পুরাতন ভবন রংয়ের কাজ ও মেরামত করবেন বলে। আজ পর্যন্ত সে কাজ হয়নি। রূপালী ব্যাংকের পটুয়াখালী শাখায় শিওর ক্যাশের অ্যাকাউন্ট এবং অগ্রণী ব্যাংকের সুবিদাখালী শাখার কলেজের টিউশন ফি অ্যাকাউন্ট থেকে নিজেই স্বাক্ষর দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা তুলেছেন। এক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) স্বাক্ষরের বিধান থাকলেও তিনি তা মানেননি। বিভাগীয় তদন্ত করলেই এর প্রমান মিলবে বলে জানা গেছে। ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আসাদুজ্জামানের বিরুদ্ধে আরো অভিযোগ রয়েছে। এ দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে তিনি বিভিন্ন ইয়ারের প্রমোশন বাবদ ১,০০০/- টাকা এবং প্রশংসাপত্র ফি বাবাদ ৫০০ টাকা প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে আদায় করে সে অর্থ ব্যাংকে জমা না দিয়ে নিজে আত্মসাৎ করেছেন। আসাদুজ্জামানের অনিয়মের কারণে কলেজটি বর্তমানে দুর্নীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক সাবিনা ইয়াসমিনের সাথে অধ্যক্ষের গোপন সম্পর্ক নিয়েও রয়েছে অনেক রসালো মন্তব্য ও গুরুতর অভিযোগ যা রাচপথ বিচিত্রার তদন্তাধীন রয়েছে।

Related Articles

পুনর্গঠিত হলো বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ

সভাপতি আলহাজ্জ্ব ফেরদৌস স্বাধীন ফিরোজ : সাধারণ সম্পাদক এড. মো: ফারুক উজ্জামান ভূইয়া টিপু আকাশ বাবু:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি রাজনৈতিক সহযোগী সংগঠন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক স্বাধীন...

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী আজ

আজ (৪ অক্টোবর) বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী। ১৯৬৪ সালে আজকের এই দিনে রাশিদা খানমের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

22,042FansLike
0FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

পুনর্গঠিত হলো বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ

সভাপতি আলহাজ্জ্ব ফেরদৌস স্বাধীন ফিরোজ : সাধারণ সম্পাদক এড. মো: ফারুক উজ্জামান ভূইয়া টিপু আকাশ বাবু:বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একটি রাজনৈতিক সহযোগী সংগঠন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক স্বাধীন...

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

Rajpath Bichtra E-Paper: 20/10/2021

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী আজ

আজ (৪ অক্টোবর) বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ৫৭তম বিবাহ বার্ষিকী। ১৯৬৪ সালে আজকের এই দিনে রাশিদা খানমের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন...

‘আইএমইডি’র নিবিড় পরিবীক্ষণ প্রতিবেদন করোনা দূর্যোগেও ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে ‘জলাশয় সংস্কারের মাধ্যমে মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প’

তিন দশকে দেশে মাছের উৎপাদন বেড়েছে ২৫ গুণজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে গণভবন লেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মাছের পোনা অবমুক্ত করে মৎস্য চাষকে...

Rajpath Bichitra E-Paper 28/09/2021

Rajpath Bichitra E-Paper 28/09/2021